বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০, ১১:২৫ অপরাহ্ন
নোটিশ ::
Ruhul: Welcome to our website....

টাকা নিয়ে মাদকসেবীকে ছেড়ে দেয়ার অভিযোগ এসআইয়ের বিরুদ্ধে

রিপোর্টার / ১৪৪ বার
আপডেটের সময় : বুধবার, ২৬ আগস্ট, ২০২০

Rnewstv

পাবনার চাটমোহর উপজেলায় মাদকসেবী সন্দেহে চার যুবককে আটকের পরপরই ছেড়ে দিয়েছেন থানার এসআই ওয়াসিম। এ ঘটনায় হাজার ত্রিশেক টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন তিনি। এমন গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়েছে ঘটনাস্থলের আশপাশের তিন-চার গ্রামে।

তবে এসআই ওয়াসিম টাকা নেয়ার বিষয়টি অস্বীকার করে বলছেন- ‘তাদের তিনি আটকই করেনি, তাই ছেড়েও দেয়া হয়নি।’ আর ওসির দাবি, ‘টাকা নেয়ার বিষয়টি তার জানা নেই।’

ঘটনা সরেজমিন তদন্তে পাবনা পুলিশ সুপারের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন এলাকার সচেতন মানুষ।

এলাকাবাসীর ভাষ্য, গত রোববার সন্ধ্যার ঠিক আগ মুহূর্তে চাটমোহর-অষ্টমণিষা সড়ক দিয়ে জাবরকোল গ্রামের দিকে যাচ্ছিল একটি বোরাক। সেই বোরাকে ছিলেন চার যুবক। জাবরকোল গ্রামের অদূরে বোরাকটির গতিরোধ করেন সাদা পোশাক পরিহিত এক ব্যক্তি। পরে জানা যায় তিনি পুলিশের লোক, এসআই ওয়াসিম।

প্রত্যক্ষদর্শীদের ভাষ্য, জাবরকোল নতুনপাড়া এলাকায় জিজ্ঞাসাবাদকালে পাড়াটির প্রায় অর্ধশত নারী-পুরুষ উপস্থিত ছিলেন। এরপর সেখানে হাজির হন পৈলানপুর গ্রামের বাসিন্দা ও গুনাইগাছা ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বার ও জাবরকোল গ্রামের বাসিন্দা ও গুনাইগাছা ইউনিয়নের আরেক মেম্বার।

এলাকাবাসীর দাবি, তাদের মধ্যস্থতায় ওই চারজনকে ছেড়ে দেন এসআই। তবে বোরাকের চালককে নিয়ে যান তিনি। ছেড়ে দেয়া চারজন হলেন, জাবরকোল নতুনপাড়া গ্রামের বাসিন্দা মোস্তফা, নয়ন, রাজ ও রনি।

একাধিক সূত্র বলছে, অষ্টমণিষা বাজার সংলগ্ন বাংলা মদের দোকান এলাকা থেকে বোরাকটি চাটমোহরের দিকে আসছিল। নুরনগর ঘাট এলাকায় থাকা সোর্স বিষয়টি ওয়াসিমকে জানায়। এরপরই তাদের পাকড়াও করতে সাদা পোশাকে অভিযান চালান ওয়াসিম।

এদিকে স্থানীয় এক সাংবাদিক টাকা লেনদেনের বিষয়টি ওসিকে জানালে সোমবার রাতে ছেড়ে দেয়া চারজনকে চাটমোহর সার্কেল অফিসে ডেকে নেয়া হয়। সেখানেই বিষয়টি ‘সুরাহা’ করা হয়। সার্কেল অফিসে ডেকে নেয়া ও সুরাহার বিষয়টি একাধিক সূত্র জানিয়েছে।

তবে এসআই ওয়াসিম মোবাইল ফোনে জানান, ওই চারজনকে আটকই করা হয়নি। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে মাত্র। যার কাছে মাদক পাওয়া গেছে তাকে ধরা হয়েছে।

চাটমোহর থানার ওসি আমিনুল ইসলাম বলেন, টাকা নেয়ার বিষয়টি আমার জানা নেই। টাকা নিয়ে থাকলে ব্যবস্থা নেয়া হবে, যারা টাকা দিয়েছে তাদের অভিযোগ দিতে বলেন। বিষয়টি আমি এএসপি (সার্কেল) স্যারকে জানাব।

এএসপি (চাটমোহর সার্কেল) সজীব শাহরিন বলেন, বিষয়টি জানার পর আমি ওই চারজনকে ডেকেছিলাম। এসআই ওয়াসিমের বিরুদ্ধে তাদের কোনো অভিযোগ নেই বলে জানিয়েছেন তারা।


আপনার মতামত লিখুন :    
এ জাতীয় আরো সংবাদ
error: Content is protected !!
error: Content is protected !!